মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১১:৫০ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদঃ
সর্বশেষ সংবাদঃ
মহম্মদপুরে বৃদ্ধকে জনসম্মুখে মাথা ন্যাড়াসহ গোঁফ কেটে দেওয়ার অপরাধে ত্রিনাথ শীলকে আটক করেছে পুলিশ মহম্মদপুরের দীঘা ইউনিয়নের দীঘা গ্রামে স্বামী -স্ত্রী বিষ পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা – ভিভিও লিংক বন্ধুকে হত্যা করে, বন্ধুর বাইকেই ঘুরে বেড়াল তার বান্ধবীকে নিয়ে। মাগুরা রিপোর্টার্স ইউনিটির নতুন সদস্য সংগ্রহের জন্য প্রাথমিক সদস্য ফরম বিতরণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। মহম্মদপুরের চাকুলিয়ায় আকস্মিক হামলায় আহত ৬ বাড়িঘর ভাঙচুর লুটপাট ! মাগুরার শ্রীপুরে ১০ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক মাগুরা রিপোর্টার্স ইউনিটির কমিটি ভেঙ্গে, আহ্বায়ক কমিটি গঠন মহম্মদপুরে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত মাগুরা রিপোর্টার্স ইউনিটির ঈদ পুনর্মিলন উদযাপন গ্রিন মাগুরা ক্লিন মাগুরা আন্দোলনের ঘোষণা দিলেন জেলা প্রশাসক মহম্মদপুরে বেসরকারি ভাবে আ:মান্নান চেয়ারম্যান নির্বাচিত মহম্মদপুরে ছাত্র-ছাত্রী বিহীন চলছে এমপিও প্রতিষ্ঠান ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ সাধারণ নির্বাচন উপলক্ষে বিশেষ আইন-শৃঙ্খলা সভা অনুষ্ঠান মাগুরায় পুলিশের অভিযানে দুইটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ আটক তিন মহম্মদপুরে ৩২ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ পুলিশের হাতে আটক ১ মহম্মদপুরে দেশীয় অস্ত্র সহ ডাকাত দলের সদস্য গ্রেফতার শ্রীপুরে বিশেষ আয়োজনে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে ব্যতিক্রমী আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো মাগুরা রিপোর্টার্স ইউনিটের বাৎসরিক আনন্দ ভ্রমণ শেষ পৌষের কনকনে শীতে কাঁপছে মাগুরা! মাগুরার মহম্মদপুরে শতবর্ষী ঐতিহ্যবাহী বড়রিয়ার মেলা শুরু!
Notice :
প্রিয় পাঠক   দৈনিক মাগুরার কথা   অনলাইন নিউজ পোর্টালে আপনাকে স্বাগতম । গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের নিয়ম মেনে বস্তু নিষ্ঠ তথ্য ভিত্তিক সংবাদ প্রচার করতে আমরা বদ্ধ পরিকর ।  বি:দ্র : এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা,  ছবি ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি । এখানে ক্লিক করুণ Apps  

কেশবপুরে জরাজীর্ণ ভবনে ঝুঁকির মধ্যে চলছে পোষ্ট অফিসের কার্যক্রম

আজিজুর রহমান, কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি / ১৯৪ বার পঠিত হয়েছে।
নিউজ প্রকাশ : বুধবার, ২৩ মার্চ, ২০২২, ১১:৩০ অপরাহ্ন

জরাজীর্ণ ভবনে ঝুঁকির মধ্যে চলছে কেশবপুর উপজেলা পোষ্ট অফিসের কার্যক্রম। ভবনের পিছনে পোষ্ট মাষ্টারের আবাসিক অংশ পরিত্যক্ত ঘোষনা করা হয়েছে অনেক আগেই।
ছাদের ভীমে ফাটল ও পলেস্ত্মরা খসে পড়া একটি কক্ষে পোষ্টমাষ্টার,পোষ্টাল অপারেটর ও পোস্টম্যানরা ঝুঁকির মধ্যে কাজ করছেন। এ অবস্থায় ভবনটির সংস্কার কিংবা পোষ্ট অফিসের জন্য নতুন ভবন নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন এখনকার কর্মকর্তা কর্মচারীরা।বুধবার দুপুরে পোষ্ট অফিসে গিয়ে দেখা গেছে,েেপাষ্টমাষ্টারের মাথার ওপর বৈদু্যতিক পাখার হুক ভেঙে ও পলেস্ত্মরা খসে পড়ায় ঝুলে আছে বিদু্যতের তার। জানা গেছে, ১৯৮০ সালে কেশবপুর পৌরশহরের ৪নং আলতাপোল ওয়ার্ডের উত্তর অংশে হাসপাতাল সড়ক সংলগ্ন উপজেলা পোস্ট অফিসের নতুন ভবনের উদ্বোধন হয়। কেশবপুর পৌরসভা ও সদর ইউনিয়ন ছাড়াও আশপাশের ইউনিয়নের মানুষ ওই পোস্ট অফিস থেকে সেবা নিয়ে থাকেন। তাছাড়াও প্রতিদিন ২৪টি শাখা পোষ্ট অফিসের চিঠিপত্র আদান-প্রদান ও অন্যান্য ডাকসেবার সমন্বয় করে থাকে ওই উপজেলা পোষ্ট অফিস। গত চার দশকে পোষ্ট অফিসের দুই পাশের সড়ক দু’টি পর্যায়ক্রমে উঁচু হওয়ায় ভবনটি চলে গেছে দুই থেকে আড়াই ফুট নীচে। ফলে বর্ষাকালে ভবনের চারপাশে পানি জমে স্যাতসেতে পরিবেশে আবাসিক অংশ বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়েছে অনেক আগেই। সামনের জরাজীণ একটি বড় কক্ষের মধ্যে পোস্টমাস্টার,পোষ্টাল অপারেটর ও পোস্টম্যানরা কার্য পরিচালনা করেন। কÿটির ছাদের পলেস্ত্মারা খসে পড়ছে ও ভীমে ফাটল ধরেছে বেশ আগে। ফলে বৈদু্যতিক পাখা ৩টি খুলে রাখা হয়েছে। ষ্টাফরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ওই জরাজীর্ণ কÿে মানুষের ডাকসেবা দিয়ে আসছেন। যে কোনো মুহূর্তে ছাদের পলেস্ত্মরা খসে পড়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন অনেকেই। পাশে ছোট একটি কÿে পোষ্ট ই-সেন্টারে কম্পিউটারের প্রশিÿণ চলে সারা বছর। কিন্তু ভবনের ভেতরে বা বাইরে প্রশিÿনার্থী ও সেবা প্রহত্যাশীদের মলমূত্র ত্যাগ করার কোনো ব্যবস্থা নেই।দায়িত্ব প্রাপ্ত পোষ্টাল অপারেটর পলাশ কুমার আইচ বলেন, গত বছর ছাদের পলেস্ত্মরা ও পোষ্টমাষ্টারের মাথার ওপরের বৈদু্যতিক ফ্যানটি হুকসহ খসে পড়ায় তিনি অল্পের জন্য জীবনে রÿা পান। যে কারণে অন্য ৩টি বৈদু্যতিক ফ্যানও খুলে রাখা হয়েছে। অন্যান্য ডাক সেবা ছাড়াও শুধু সঞ্চয় পত্র সংক্রান্ত্ম কাজে আসা ব্যক্তিদের প্রতিদিন কিছু সময় অপেÿা করতে হয়। গরমের মধ্যে ফ্যান ছাড়া প্রতিদিন কিভাবে কাজ চলবে সেই চিন্ত্মায় পড়েছি।পোস্টমাস্টার রবিউল হক রয়েল বলেন,বর্তমান এ পোষ্ট অফিসে জনবল সংকট আর ফাটল ধরা ভবনে ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে।ভবনের ভেতরে ভালো কোন ওয়াশরম্নম নেই। পরিচিতজনরা ওয়াশ রম্নমের কথা বললে লজ্জায় পড়তে হয়। ষ্টাফরা নানান সংকটের মধ্যে প্রতিদিন আসে আর কাজ সেরে চলে যাই। পথচারীরা ভবনের পাশে মলমূত্র ত্যাগ করে। তা ছাড়া বৃষ্টির পানি জমে স্যাতস্যেতে পরিবেশে গুরম্নত্বপূর্ণ কাগজপত্র নষ্ট হয়ে যায়। খুব সাবধানে ও কষ্ট করে এগুলো সংরক্ষণ করে রাখা হচ্ছে। যশোর বিভাগের ডেপুটী পোষ্টমাষ্টার জেনালের (ডিপিএমজি) মিরাজুল হক জানান, কেশবপুর উপজেলা পোষ্ট অফিসের ভবনটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়ায় নতুন ভবনের জন্য প্রস্ত্মাবনা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। খুব তাড়াতাড়ি নতুন ভবনের বরাদ্দ আসবে বলে আশা করা যায়।


এই বিভাগের আরও খবর
এক ক্লিকে বিভাগের সবখবর
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!