শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৮:৪৩ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদঃ
সর্বশেষ সংবাদঃ
মহম্মদপুরে বেসরকারি ভাবে আ:মান্নান চেয়ারম্যান নির্বাচিত মহম্মদপুরে ছাত্র-ছাত্রী বিহীন চলছে এমপিও প্রতিষ্ঠান ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ সাধারণ নির্বাচন উপলক্ষে বিশেষ আইন-শৃঙ্খলা সভা অনুষ্ঠান মাগুরায় পুলিশের অভিযানে দুইটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ আটক তিন মহম্মদপুরে ৩২ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ পুলিশের হাতে আটক ১ মহম্মদপুরে দেশীয় অস্ত্র সহ ডাকাত দলের সদস্য গ্রেফতার শ্রীপুরে বিশেষ আয়োজনে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে ব্যতিক্রমী আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো মাগুরা রিপোর্টার্স ইউনিটের বাৎসরিক আনন্দ ভ্রমণ শেষ পৌষের কনকনে শীতে কাঁপছে মাগুরা! মাগুরার মহম্মদপুরে শতবর্ষী ঐতিহ্যবাহী বড়রিয়ার মেলা শুরু! মাগুরার শ্রীপুরে পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১০ (দশ) কেজি গাজা উদ্ধার। মাগুরার জনগণ নির্বিঘ্নে উৎসব মুখর পরিবেশে ভোট দিতে পারবে – পুলিশ সুপার মাগুরায় জমে উঠেছে ফুটপাতের শীতের পিঠা! মাগুরা মহম্মদপুরে জোড়া খুনের ঘটনায় ২৪ ঘন্টার মধ্যে মূল আসামী গ্রেফতার” মহম্মদপুরে আপন দুই ভাইয়ের গলাকাটা লাশ উদ্ধার আটক-২ মাগুরায় ব্রিজের নিচে হতে উদ্ধারকৃত কঙ্কালের রহস্য উদঘাটন সহ মূল আসামি গ্রেফতার। ঝরে পড়া ৩০ শিশুকে স্কুলে ফেরাল জেলা প্রশাসক মাগুরা শালিখায় অসহায়, দুঃস্থ ও প্রতিবন্ধীদের মাঝে “এক পেট আহার অত:পর হাসি” এর পক্ষ থেকে খাবার বিতরণ প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো শারদীয় দুর্গাপূজা ২০২৩ মাগুরার মহম্মদপুরে পুজা মন্ডপ পরিদর্শন ও অনুদান বিতরণ
Notice :
প্রিয় পাঠক   দৈনিক মাগুরার কথা   অনলাইন নিউজ পোর্টালে আপনাকে স্বাগতম । গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের নিয়ম মেনে বস্তু নিষ্ঠ তথ্য ভিত্তিক সংবাদ প্রচার করতে আমরা বদ্ধ পরিকর ।  বি:দ্র : এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা,  ছবি ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি । এখানে ক্লিক করুণ Apps  

আশাশুনির কুল্যার বৃদ্ধা রহিমা বেগম ভিক্ষাবৃত্তি করে সংসার চালান

আহসান উল্লাহ বাবলু, সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধিঃ / ৪৬৫ বার পঠিত হয়েছে।
নিউজ প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৪ মার্চ, ২০২১, ৯:৩৮ অপরাহ্ন

বিধবা রহিমা বেগমের বয়স ৭০ বছর পার হয়ে গেছে। খাদ্য যোগাড় করার কারনে বাধ্য হয়ে তিনি ভিক্ষাবৃত্তি বেছে নিয়েছেন। বৃদ্ধ বয়সেও তিনি বিধবা বা বয়স্ক ভাতার কার্ড পাননি। আশাশুনি উপজেলার কুল্যা গ্রামের শাহাজী পাড়ার মৃত কচিমদ্দিন শাহাজীর স্ত্রী রহিমা বেগম জানান, ৩৮ বছর আগে আমার স্বামী মারা গেছে। ৪ মেয়ে ও ১ ছেলের সংসারে দারিদ্র্যতা আমার সঙ্গী ছিল। অন্যদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভিক্ষা করে ৪ মেয়ে ও ১ ছেলেকে বিয়ে দিয়েছি। কিন্তু বড় হওয়ার পর তারা নিজেদের নিয়েই ব্যস্ত। দেখার মতন আমার কাছে কেউ রইলনা। ছেলে সবুর শাহাজী বিয়ের পর থেকে ভোমরায় শ্বশুর বাড়িতে থাকে। উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিসসহ বিভিন্ন রোগে জর্জরিত আমি। প্রতিদিন মোটা অংকের টাকার ঔষধ সেবন করতে হয় আমার। কে দেবে খরচের টাকা? কিভাবে পেট ভরে খেতে পারব? জায়গা জমি বলে আমার কিছু নেই। মেয়ের একটু জায়গায় আমি বসবাস করি। অসুস্থ শরীর নিয়ে সব সময় অন্যের বাড়িতে ভিক্ষা করতে যেতে পারিনা। জানি বয়স বেশি হলে বয়স্ক ভাতার কার্ড হয়। বিধবা হলে বিধবা কার্ড হয়। দরিদ্র হলে ভিজিডি কার্ড হয়, আমি কি হলে কার্ড পাব ? আমি কার কাছে গেলে কার্ড পাব? মেম্বার, চেয়ারম্যান সবার কাছে গিয়েছি তবুও কার্ড পায়নি। সাংবাদিকদের বলে খবর করে সবাইকে জানাতে চাই। উপজেলা নির্বাহী অফিসার, জেলা প্রশাসকসহ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।


এই বিভাগের আরও খবর
এক ক্লিকে বিভাগের সবখবর
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!